Home মাসলা মাসায়েল শিশুর হজ

শিশুর হজ

3
0
SHARE

শিশুর হজ
শিশুর হজের ব্যাপারে বিভিন্ন মত রয়েছে।
ইমাম মালেক শাফে ঈ আহমদ ও অধিকাংশ আলেমের মতে, শিশুর হজ শুদ্ধ হবে। প্রাপ্ত বয়স্কদের হজ পালনে যেসব বিধি-বিধান মানতে হয় শিশুদের বেলায়ও তা প্রযোজ্য হবে।তবে ইসলামে ফরজ হজ আদায়ের জন্য এই হজ যথেষ্ট হবেনা। প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ার পর যদি তার হজ করার সামর্থ হয় তাহলে তখন তাকে পুনরায় হজ করতে হবে। হযরত ইবনে আব্বাস (রা.) বর্ণিত মুসলিম শরীফের একটি হাদীস এই মতের পক্ষে দলীল। সেটি হচ্ছে- ‘রাসুল (সা.) হজে যাওয়ার পথে রাওহা নামক স্থানে এক উট আরোহী দলের সাক্ষাত পেলেন। জানতে চাইলেন, তারা কারা। তারা বললো, আমরা মুসলমান। এরপর তারা জিজ্ঞেস করলে, আপনি কে? তিনি বললেন, আমি আল্লাহর রাসুল। এটি শুনে এক মহিলা তার দিকে একটি শিশুকে তুলে বললেন, এর কী হজ হবে? তিনি বললেন, হ্যাঁ। তবে এর জন্য সে সওয়াব পাবে।
তবে হানাফী মাযহাবের ইমামদের মতে, শিশুর হজ শুদ্ধ নয়। কারণ শিশুর ইহরাম বাঁধাই শুদ্ধ নয়। তারা ইহরামের যোগ্যই নয়। সুতরাং হাদীসে বর্ণিত হ্যাঁ অর্থ তাকে অভ্যাস করানো মাত্র।
ইমাম হাকেম তার মুস্তাদরাক গ্রন্থে বর্ণনা করেছেন, নবী করীম (স.) বলেছেন, কোন শিশু দশবার হজ করে থাকলেও বয়;প্রাপ্ত হওয়ার পর ইসলামের ফরজ হজ তাকে আদায় করতে হবে। মোট কথা শিশুর হজ নফল হিসেবে আদায় হবে। যদি নিজে আদায় করার মতো বুদ্ধি বিবেক না থাকে তবে তার সব কাজ অভিভাবক আদায় করবে।##

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here